নির্বাচন সংযোগ

অটো পাস এমপি হতে চলেছেন জিএম কাদের-হিজড়া রানী

অটো পাস এমপি হতে চলেছেন জিএম কাদের-হিজড়া রানী জনসংযোগ

রিয়াজুল হক সাগর,রংপুর প্রতিনিধি:

বিগত সময়ে রংপুরে জাতীয় পার্টির অন্যতম দুর্গ হিসেবে খ্যাত রংপুর ৩ আসনটিতে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে কি হতে চলেছে তা নিয়ে প্রশ্ন সাধারণ ভোটারসহ সবারই মনে। রংপুর জেলার ছয়টি আসনের মধ্যে সবগুলোতে জাতীয় পার্টির প্রার্থী রয়েছে। এর মধ্যে দুটো আসন – গঙ্গাচড়া ও সদর আসনে আওয়ামী লীগ তাদের প্রার্থী প্রত্যাহার করে নিয়েছে। বাকি চারটি আসনে আওয়ামী লীগ এবং জাতীয় পার্টির প্রার্থী রয়েছে।রংপুর-৩, অর্থাৎ সদর আসনটিতে ছয়জন প্রার্থী থাকলেও কোন প্রতিদ্বন্দ্বিতা দৃশ্যমান নয় এখন পর্যন্ত ।

স্থানীয়রা বলছেন এই আসনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী প্রত্যাহার করায় জিএম কাদের ‘ওয়াকওভার’ পেয়েছেন। সেজন্য প্রচার প্রচারণায় কোন গরজও দেখা যাচ্ছে না জিএম কাদেরের ।প্রতিদ্বন্দ্বিতা ছাড়া কোন নির্বাচনকে কি ভালো নির্বাচন বলা যায়? এমন প্রশ্নের জবাবে জি এম কাদের বলেন, প্রতিযোগিতা না থাকলে ভালো নির্বাচন বলা যায়না। তবে এটা ব্যবস্থা করার দায়িত্ব তাদের হাতে ছিলনা বলে জানান তিনি।রংপুর-৩ আসনে বাকি প্রার্থীরা হলেন – বাংলাদেশ কংগ্রেসের একরামুল হক, এনপিপি’র আব্দুর রহমান, জাসদ-এর শহিদুল ইসলাম, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির শফিউল আলম ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আনোয়ারা ইসলাম রানী, যিনি একজন তৃতীয় লিঙ্গ।প্রচারণা শুরুর পাঁচদিন পরে জিএম কাদের রংপুর শহরে জাতীয় পার্টি কার্যালয়ের সামনে সীমিত আকারে একটি কর্মীসভা করেছেন। তার তরফ থেকে উল্লেখযোগ্য কোন জনসংযোগ চোখে পড়েনি। শহরে অল্পকিছু পোস্টার লাগানো ছাড়া অন্যকোন প্রচারণায় আগ্রহ দেখা যাচ্ছেনা।

এছাড়া বাকি পাঁচজন প্রার্থীর মধ্যে আনোয়ারা ইসলাম রানী ছাড়া অন্য প্রার্থীদের জনসংযোগে খুঁজেই পাওয়া যায়নি। শহরে যেসব পোস্টার রয়েছে সেগুলোর মধ্যে জিএম কাদের এবং আনোয়ারা ইসলাম রানীর পোস্টার বেশি। অন্য প্রার্থীদের পোস্টার কিংবা লিফলেট খুব একটা চোখে পড়েনি।কয়েকজন প্রার্থীর পক্ষে শহরে অল্প সময়ের জন্য মাইকিং করতে দেখা গেছে। কিন্তু সাধারণ মানুষের কাছে গিয়ে ভোট চাওয়ার কোন তৎপরতা দেখা যায়নি।

অন্য প্রার্থীরা জনসংযোগে সক্রিয় হচ্ছেন না কেন? বিষয়টি নিয়ে আনোয়ারা ইসলাম রানীর মনে অনেক প্রশ্ন আছে।রানি বলেন,তলে তলে অটো পাস এমপি হয়ে আছেন জি এম কাদের“শুধু আমি একাই মাঠে আছি, আর কোন প্রতিদ্বন্দ্বীকে দেখছি না। এটা কিসের ইঙ্গিত দিচ্ছে? আসলেই কি সিলেকশন হয়ে আছে? যদি এরকমই হয় তাহলে আমাদের হয়রানি করার কী দরকার? নির্বাচন নিয়ে এই নাটক কেন?” প্রশ্ন তোলেন আনোয়ারা ইসলাম রানী।

রংপুর-৩ হল বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের ৩০০টি নির্বাচনী এলাকার একটি। এটি রংপুর জেলায় অবস্থিত জাতীয় সংসদের ২১নং আসন।রংপুর সদর উপজেলাসহ রংপুর সিটি কর্পোরেশনের- ১,২,৩,৪,৫,৬,৭ ও ৮ ব্যতীত রংপুর সিটি কর্পোরেশনের এলাকা সমূহ এই আসনের অন্তর্ভুক্ত এলাকা। ২০১৮ সালের তথ্য অনুযায়ী এই আসনের মোট ভোটার সংখ্যা ৪,৪১,৬৭৩ যার মধ্যে পুরুষ ভোটার ২,২১,১০৯ এবং নারী ভোটার ২,২০,৫৬৪

আপনার পণ্য বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন এখানে

এ সম্পর্কিত আরও খবর

আপনার পণ্য বা প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন এখানে
Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker