দেশ সংযোগ

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে অস্বীকার করায় আত্মহত্যা করলো প্রেমিক 

 
বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে অস্বীকার করায় আত্মহত্যা করলো প্রেমিক  জনসংযোগ

নিজস্ প্রতিবেদক

প্রেমিকার কাছে ভালোবাসার প্রতারিত ও বিয়ের প্রতিশ্রুতি অস্বীকার করায় ফেইসবুকে ভিডিও বার্তা দিয়ে আত্মহত্যা করলো বরিশালে ইমন নামে এক যুবক । বরিশাল ২৮নং ওয়ার্ডের হরিপাশা এলাকার মোঃ মামুন খানের ছেলে মোঃ ইমন খান (২৪) সাথে পাশবর্তী এলাকা ২৭নং ওয়ার্ডের শিকদার বাড়ি সৃতি আক্তার (১৭) নামে এক স্কুল ছাত্রী সাথে দীর্ঘ দিনে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। তাদের প্রেম থেকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি ছিলো এবং বিষয়টি নিয়ে ইমন ও সৃতির পরিবার মধ্যে সমঝোতা চেষ্টা করা হয়, তবে সৃতির পরিবার ইমনের সাথে বিবাহের প্রস্তাবটি অস্বীকার করে।

এদিকে তাদের প্রেমের বিতরে মিথ্যা প্রেম ছিলো তা জানতো না প্রেমিক ইমন। যখন ইমন জানতে পারে তার প্রমিকা তিনি ছাড়াও আরেক যুবকের সাথে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে এবং পাশাপাশি সৃতির পরিবার সৃতির জন্য অনন্ত বিবাহ ঠিক হওয়া সেই হবু বরের সঙ্গে আলাপ চালিয়ে যায়। এমনটা সংবাদ ইমন পেয়ে সৃতির সাথে যোগাযোগ করে এবং তাদের মধ্যে এক পর্যায় রাগারাগি হয়। প্রেমিক ইমনকে বিবাহ করতে অস্বীকার করে দেয় সৃতি আক্তার।

জানা গেছে ইমনের পরিবারকে হুমকির দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে প্রেমিকা সৃতির বাবার উপর । সৃতির পরিবার দিয়ে প্রেমিক ইমনকে মুঠোফোনে একাধিকবার হুমকি গালাগালিসহ নানা বিদ কথা শুনায়। এতো নিজ ভালোবাসা ভয়ে মানসিক ভেঙে পরেন প্রেমিক ইমন খান। সবশেষে এমন মানসিকতার চাপে পড়ে গত সোমবার (১৩ই মে ২০২৪ ইং) দুপুরে দিকে ঢাকা মিরপুরে এক ভাড়া বাসায় প্রেমিক ইমন দাঁড়ালো অস্ত্র দিয়ে তার নিজ হাত গলা ক্ষত বিক্ষত করে ফেইসবুকে ভিডিও বার্তা আপলোড করে এবং নিজ ফোন আনলক করে নিজের রক্ত দিয়ে কয়কটি পৃষ্ঠায় চিঠি লিখে, সবশেষে নিজ গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেন প্রেমিক ইমন খান।

ফেইসবুকে আপলোড করা ভিডিও বার্তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পরে এবং তার সাথে সবাই যোগাযোগ করার চেষ্টা করে এবং তার আত্মীয় স্বজনরা তাকে উদ্ধার করার সময় ইমনের গলায় রশি ঝুলানো অবস্থায় পাওয়া যায়। ঢাকা থেকে নিজ বাড়িতে লাশ পৌঁছালে কান্নায় ভারি হয়ে ওঠে ইমনের পরিবার আত্মীয় স্বজনসহ এলাকাবাসীরা এবং নিজ বাড়িতে দাফন সম্পন্ন করা হয়। এদিকে ইমনের আত্মহত্যা খবর পেয়ে বাড়ি থেকে পালিয়েছেন সৃতির পরিবার।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

 
Back to top button

Adblock Detected

Please consider supporting us by disabling your ad blocker